গণপরিবহনে কোন চাঁদাবাজি হবে না; মানে হবে না:দোহার ওসি সাজ্জাদ হোসেন

75

নিজস্ব প্রতিবেদক : গণপরিবহন খাতে কোন রকম চাঁদাবাজি হবে না মানে হবে। গণপরিবহন দৃশ্যমান রাস্তায় স্ট্যান্ডের নাম করে। কোন রাজনৈতিক সংগঠন বা যে কোন সংগঠনের নাম করে কোন পরিবহন খাত থেকে চাদাঁবাজি করা যাবে না হবে না। দোহারের পরিবহন খাতের সাথে জরিতদের সতর্ক করে  দোহার থানা অফিসার ইনচার্য সাজ্জাদ হোসেন এসব কথা বলেন। 

৯ জুন মঙ্গলবার সকালে দোহার থানার হল রুমে, উপজেলার আরাম, নগর, জয়পাড়া, ডিএনকে পরিবহনের মালিক, সুপার ভাইজার, শ্রমিকদের সাথে মত বিনিময় ও জরুরী আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। 

তিনি আরও বলেন, আপনারা জানেন সরকারি বিধি সর্ত মেনে যেহেতু গণপরিবহন খাত সিমিত আকারে স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে মেনে চালানোর কথা বলা হয়েছে। আর মানুষ যেহেতু ঘর থেকে বের হচ্ছে, এবং গণপরিবহন ব্যবহার করছে, সে ক্ষেত্রে গণপরিবহন খাতকে এগুলো মেনে চলতে হবে। এবং পরিবহন চালানোর জন্য ইন্টারনাল কিছু খরচ থাকে সেটা আলাদা জিনিস। কিন্তু সাংবাদিক, পুলিশ, যুবলীগ, শ্রমিকলীগ কারো নাম করে কোন চাদাঁবাজি করতে দেওয়া হবে না। 

জানা যায়, ঢাকা জেলা পুলিশের আওতাধীন থানা এলাকাগুলোর মহাসড়ক, আন্ত:সড়ক ও বিভিন্ন স্ট্যান্ডে চাঁদাবাজি বন্ধে বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল অফ পুলিশ ড.বেনজির আহমেদ(বিপিএম,বার) মহোদয়ের তত্বাবধানে ও ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান(বিপিএম,বার) পরোক্ষ সহযোগিতায় ও ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার মো.মারুফ হোসেন সরদার (বিপিএম, পিপিএম,বার) নির্দেশক্রমে ইতিমধ্যে ঢাকা জেলার প্রতিটি থানায় চাদাঁবাজি বন্ধের অংশ হিসেবে চাঁদাবাজদের চিহ্নিত করে ৪৭ জন ও অজ্ঞাতনামা ২৩ জন সহ মোট ৭০ জনের বিরুদ্ধে দ্রুত বিচার আইনে ১০টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ওই মামলার ভিত্তিতে আশুলিয়া থানার বাইপাইল, সাভার, আমিনবাজার, অন্ধমার্কেট, কেরানীগঞ্জ এবং দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার কদমতলী, কোন্ডা, আব্দুলাহপুর, বছিলা এলাকায় অভিযান চালিয়ে যুবলীগ, শ্রমিকলীগ নেতা সহ ২৩ জন চাঁদাবাজকে আটক করা হয়েছে।

তাই দোহারে যেন এরকমটা না হয় সে জন্য পরিবহন ব্যবসায়ীদের সাথে আলোচনা করে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে জানান দোহার অফিসার ইনচার্য সাজ্জাদ হোসেন। 

উপস্থিত ছিলেন দোহার থানার ওসি (তদন্ত) কর্মকর্তা মো.আরাফাত হোসেন, জয়পাড়া পরিবহনের সভাপতি আলমাছ উদ্দিন, নগর পরিবহনের পরিচালক জহির উদ্দিন, আরাম পরিবহন পরিচালনা কমিটির সদস্য মির্জা আজম, ডিএনকে পরিবহনের হাবিবুর রহমান হাবিব, আরাম পরিবহনের শ্রমিক নেতা মো. জামাল হোসেন, শ্রমিক নেতা আব্দুর রশিদ, দোহার প্রেসক্লাবের সম্পাদক সমকাল রিপোর্টার মাহবুবু টিপু, খবর ৩২ এর চিফ এডিটর মোস্তফা কদ্দুস, চ্যানেল ২৪ দোহার প্রতিণিধি শামিম আরমান, একুশে মিডিয়ার জাকির হোসেন, প্রতিদিনের সংবাদ তানজিম আহাদ, নিউজ৩৯ জুবায়ের আহমেদ, সময়ের আলোর মহিউল পলাশ, প্রিয় বাংলার বিল্লাল হোসেন সহ দোহার প্রেসক্লাবের সাংবাদিকবৃন্দরা।